পর্ণগ্রাফি আসক্তির ভয়াবহতা ও ক্ষতিকর দিকগুলো না জানলেই নয়!(ভবিষ্যৎ নষ্ট করছেন নাতো?)


পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি প্রচলিত ও মারাত্মক ক্ষতিকর এবং সহজলভ্য ড্রাগ হচ্ছে পর্ণ। পর্ণে আসক্ত হওয়া ড্রাগ আসক্তির অনুরূপ।র্ণ আসক্তি বর্তমান জেনারেশনের মধ্যে রন্ধ্রে রন্ধ্রে ছড়িয়ে গেছে যা হতাশা,বিষণ্ণতা ও মানসিক এবং যৌন স্বাস্থ্যের ক্ষতি করছে। এটির ভয়াবহতা ও ক্ষতিকর দিকগুলো অবশ্যই সবার জানা প্রয়োজন। 

pornography asoktir voyabhota  পর্ণগ্রাফি আসক্তির ভয়াবহতা ও তা থেকে মুক্তির উপায়,পর্ণগ্রাফি মানে কি,পর্ণ আসক্তি কি ও এটির অপকারিতা,পর্ণগ্রাফি দেখলে কি ক্ষতি হয়
pornography asoktir voyabhota  পর্ণগ্রাফি আসক্তির ভয়াবহতা ও তা থেকে মুক্তির উপায়,পর্ণগ্রাফি মানে কি,পর্ণ আসক্তি কি ও এটির অপকারিতা,পর্ণগ্রাফি দেখলে কি ক্ষতি হয়


পর্ণগ্রাফি মানে কি?(what is pornography in bangla) 

পর্ণগ্রাফি আসক্তির(porn addiction)  কথা বলতে গেলে পর্ণগ্রাফি মানে কি তা বুঝা দরকার। পর্ণগ্রাফি মানে বলতে আমরা যা বুঝি তা হচ্ছে নগ্ন নারী-পুরুষের যৌনমিলনের ভিডিও বা ছবি যা প্রকৃতপক্ষে অবাস্তবিক(fantasy) ও উগ্র(violence) বা নিকৃষ্ট(obscene) বিষয়াবলি। 

ঐ স্ক্রিনের দৃশ্যাবলি উগ্রতা ও ভুল যৌনতার বিষয়টির প্রকাশ ঘটায় মাত্র। তবে পর্ণগ্রাফি শুধুমাত্র নোংরা ভিডিও বা অশ্লীল ছবি নয় বরং যেকোনো অডিও, ম্যাগাজিনের গল্প বা সাহিত্য, পডকাস্ট বা gif ও পর্ণগ্রাফি হতে পারে।

পর্ণ আসক্তি কি?(what is porn addiction in bangla) 

পর্ণ আসক্তি(porn addiction) বলতে এমন একটি অবস্থাকে বুঝানো হয় যখন কেউ কোনো নির্দিষ্ট সময়ে পর্ণ না দেখতে চাওয়া সত্ত্বেও পর্ণ দেখে এবং তা তার দৈনন্দিন কাজকর্মে ব্যাঘাত ঘটায়।  নিজের ওপর তার মেজাজ খারাপ হয় ও নিজের ওপর দোষী(guilty) মনোভাব তৈরি হয়। 

এমন এক অবস্থার সৃষ্টি হয় যে আপনি পর্ণ ছাড়তে চাইলেও ছাড়তে পারেন না। 

এ নিয়ে বিস্তারিত জানুন এই আর্টিকেলে

পর্ণ আসক্তি কি এবং কখন বুঝবেন আপনি পর্ণ আসক্ত 

পর্ণ আসক্তির অপকারিতা/ভয়াবহতা/ক্ষতিকর দিক(demerites of porn addiction bangla) 

পর্ণ আসক্তির বেশ কিছু অপকারিতা বলা যায় যা সত্যিই ভয়াবহ এবং তা বর্তমানে প্রকট আকারে ধারণ করেছে। 

যৌন জীবন ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া


porn মূলত অভিনয় যার সাথে বাস্তবতার কোনো সম্পর্ক নাই। পর্ণের মাধ্যমে ভুল একটা যৌন ধারণার সৃষ্টি হয় এবং সেটাকে স আসল যৌন সম্পর্ক বলে মনে করে। 

স্ক্রিনে যেসব দেখে সেটা অবাস্তব। এই অবাস্তব বিষয়টা যখন সে তার সঙ্গীর সাথে করতে যায় তখন সে নিজেও বোকা মনে যায় এবং তার সঙ্গী তো এটা মানতে পারে না। কারণ পর্ণে অনেকটা উগ্র বিষয়বস্তু দেখানো হয় যা মূলত বাস্তবে করা সম্ভব নয়। ফলে ভুল বুঝাবুঝি হয়। 

প্রকৃত যৌন আনন্দ পাওয়া যায় না এবং যৌন জীবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়। 
এটা নিয়ে বিস্তারিত : পর্ণগ্রাফি আসক্তি ও যৌন জীবন

পুরুষের যৌনাঙ্গ উথান হয় না/erectile dysfunction 

পর্ণ দেখে দেখে মাস্টারবেশন করতে থাকলে ব্রেন ঐসব স্ক্রিন দেখেই মাস্টারবেশন করতে করতে অভ্যস্ত হয়। ফলে বাস্তবে সহবাস করার সময় যৌন আনন্দ পায় না, কারণ তার আনন্দ স্ক্রিন দেখে হয়ে থাকে। 

সে ব্রেনকে সেভাবেই তৈরি করেছে। ফলে ব্রেন সেভাবেই আনন্দ পেয়ে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। সুস্থ স্বাভাবিক যৌনতা বা সহবাস করা হলে ব্রেন তখন আনন্দ পায় না। তখন পুরুষাঙ্গের উথান হয় না, একে erectile dysfunction বলে।
 মেয়েদেরও এটা হতে পারে। তারা পর্ণ আসক্ত হলে তারা স্বাভাবিক sex এ আনন্দ পাবে না এবং তাদের orgasm হয় না তখন। 
erectile dysfunction বলতে বুঝায় orgasm বা যৌন তৃপ্তির সর্বোচ্চ পর্যায়ে যেতে না পারার ত্রুটি বা fault.
pornography asoktir voyabhota  পর্ণগ্রাফি আসক্তির ভয়াবহতা ও তা থেকে মুক্তির উপায়,পর্ণগ্রাফি মানে কি,পর্ণ আসক্তি কি ও এটির অপকারিতা,পর্ণগ্রাফি দেখলে কি ক্ষতি হয়
পর্ণ আসক্তিতে(porn addiction)  হতাশা হওয়া স্বাভাবিক ব্যাপার। বিষন্নতা, রাগ হওয়া ইত্যাদি সমস্যার উদ্ভব হয়।
Health tips by health science 



Premature ejaculation 

যদি porn দেখার সময় খুব তাড়াতাড়ি আপনার মাস্টারবেশন বা orgasm সম্পূর্ণ হয় এবং পর্ণ আসক্তিতে দীর্ঘসময় ধরে এটা চলতে থাকে তাহলে ব্রেন বুঝে যায় যে স্বল্প সময়ে আপনার মাস্টারবেশন বা orgasm হচ্ছে। 
ফলে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে খুব তাড়াতাড়ি মাস্টারবেশন হয়ে যায়। এটা সুস্থ যৌন সম্পর্কে ফাটল ধরায় এবং হতাশার জন্ম দেয়। 
সাধারণত ১-২ মিনিটের সময়ের আগে অথবা foreplay এর সময় orgasm হলে তা premature ejaculation 

delayed ejaculation 


এই টার্মটা দ্বারা বুঝায় দেরিতে মাস্টারবেশন হওয়া। সাধারণত ৩৫-৪০ মিনিটের মধ্যে মাস্টারবেশন না হলে একে delayed ejaculation বলে। 
মূলত উল্টোভাবে বা prone position এ দীর্ঘসময় ধরে পর্ণ দেখে মাস্টারবেট বা হস্তমৈথুন করলে এই সমস্যা হতে পারে। 

হতাশা ও বিষণ্ণতা 

পর্ণ আসক্ত হলে পর্ণ দেখার পর নিজের ওপর হতাশা বাড়ে, সে জানে যে পর্ণ আসক্তি(porn addiction)তার জন্য ক্ষতিকর এবং এটা ঠিক নয়। অনেকে তা কন্ট্রোল করতে পারে না। না চাইলেই সে পুনরায় পর্ণ দেখে। এভাবে নিজের ওপর রাগ ও হতাশা বাড়ে।guilty অনুভব করা হয়। ব্রেনের নিউরোক্যামিকেলের ভারসাম্য নষ্ট হওয়ার কারণে আপনি আসক্ত, হতাশ এবং বিষণ্ন

দৈনন্দিন জীবনে স্বাভাবিক কাজে সমস্যা হওয়া

পর্ণ আসক্তি সবসময় প্রচুর সময় নষ্ট করে এবং একজন চরম আসক্তিতে চলে গেলে সর্বদাই পর্ণ দেখতে চায়। ফলে আরো সময় নষ্ট হয়।সে সমাজের কাজকর্মে অংশগ্রহণ করতে চায় না। একাকী থাকতে চায়। দৈনন্দিন জীবনের গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো সে করতে পারে না। জীবন চরমভাবে বাধাগ্রস্ত হয়। 


একাকী থাকা 

পর্ণগ্রাফি আসক্ত(pornography addiction)  হলে স্বাভাবিকভাবেই সে একাকী থাকতে চাইবে, ফলে একাকীত্ব দেখা দিবে।

উগ্রতা 

উগ্র ও নিকৃষ্ট বিষয়াবলি পর্ণে দেখানো হয় যা একজনকে উগ্র ও আক্রমানাত্মক করে তুলতে পারে।তার ব্যক্তিত্বে এই বৈশিষ্ট্য ঢুকে যেতে পারে।

যৌনতা সম্পর্কে ভুল ধারণা 

পূর্বেই বলা হয়েছে যে পর্ণ একটা অভিনয় এবং এতে ভ্রান্ত যৌন ধারণার সৃষ্টি হয়। একজন ব্যক্তি স্বাভাবিক সম্পর্ক থেকে বিচ্যুত ধারণা পায়।

pornography asoktir voyabhota  পর্ণগ্রাফি আসক্তির ভয়াবহতা ও তা থেকে মুক্তির উপায়,পর্ণগ্রাফি মানে কি,পর্ণ আসক্তি কি ও এটির অপকারিতা,পর্ণগ্রাফি দেখলে কি ক্ষতি হয়
pornography  আসক্তির ভয়াবহতার কয়েকটি উদাহরণের ছবি। এর মাধ্যমে সময় নষ্ট,উগ্র মানসিকতা ও চরিত্র নষ্ট হতে পারে। ভুল যৌন ধারণার সৃষ্টি। 
যৌন স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে পর্ণ থেকে মুক্ত হন(Health science)



ব্রেন যখন পর্ণ দেখার  মাধ্যমে আনন্দ পেতে থাকে তখন ব্রেনের নিউরনগুলোই সেভাবেই rewire করে, যাতে পরবর্তীতে সে সেভাবেই আনন্দ পায়। এভাবে দীর্ঘদিন দেখতে থাকলে পর্ণের কারণে ব্রেনের ফাংশনে পরিবর্তন হয় এবং কার্যকারিতারও ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হয়। একে neuroplasticity বলে । 

 

পর্ণ আসক্তির মাধ্যমে neuroplasticity হওয়া একটা খারাপ বিষয় কারণ অবাস্তব বিষয়াবলির সাথে brain adjust করলো। 

abuse কে normalise করা 

পর্ণে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই নারীদের যৌন হয়রানি বা abusive বিষয়াবলি দেখানো হয়। এভাবে abuse রে সাধারণ বিষয় বা স্বাভাবিক হিসেবে সবার কাছে উপস্থাপন করা হয়। 

সময় নষ্ট ও কর্মক্ষমতা হ্রাস

পর্ণ দেখলে আসক্ত হয়ে গেলে প্রচুর সময় নষ্ট হয় এবং ছাত্রদের পড়াশোনায় ক্ষতি এবং অন্যদের কর্মক্ষেত্রে ক্ষতি হয়।

সর্বোপরি পর্ণ দেখে আসক্ত হয়ে গেলে ভবিষ্যত জীবনে যৌন ও মানসিক স্বাস্থ্যের ব্যাপক অবনতি ঘটে।

পর্ণগ্রাফি আসক্তি থেকে মুক্তির উপায়

পর্ণগ্রাফি আসক্তি(porn addiction)  থেকে মুক্ত পাওয়া এতো সহজ ব্যাপার নয় যদি বাস্তব কথা বলা হয়। নিজের দৃঢ় ইচ্ছা ও প্রতিজ্ঞা লাগে এবং চেষ্টা করতে প্রচুর। তবে অনেকেই তা থেকে মুক্তি পেয়ে থাকে সঠিকভাবে নিয়ম মেনে। 
তাই এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন 




Post a Comment

0 Comments